সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সাড়ে ১৪ হাজার শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এদের মধ্যে ৪ হাজার ৩২০ জন প্রধান শিক্ষক। বাকিরা সহকারী শিক্ষক। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র এ তথ্য জানিয়েছে।

সকল  চাকরির পরীক্ষার সময়সূচী ও ফলাফল মোবাইলে Notification পেতে  Android apps মোবাইলে রাখেন: Jobs EXam Alert 

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকরা দ্বিতীয় শ্রেণীর পদমর্যাদার। এ কারণে এসব শিক্ষক নিয়োগ দেবে সরকারি কর্মকমিশন (পিএসসি)। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে উল্লিখিত সংখ্যক প্রধান শিক্ষক নিয়োগে পদক্ষেপ নিতে কয়েকদিন

আগে পিএসসিতে চাহিদাপত্র পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে সারা দেশে নতুন-পুরনো মিলিয়ে ৬৩ হাজার ৪১টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় আছে। ওইসব প্রতিষ্ঠানে ১৫ হাজারের বেশি স্কুলে প্রধান শিক্ষকের পদ শূন্য আছে।

সকল  চাকরির পরীক্ষার সময়সূচী ও ফলাফল মোবাইলে Notification পেতে  Android apps মোবাইলে রাখেন: Jobs EXam Alert 

অপরদিকে মামলার জটিলতা কেটে যাওয়ায় তিন বছর আগে বিজ্ঞপ্তি দেয়া প্রাক-প্রাথমিক স্তরের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করা হচ্ছে। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের (ডিপিই) একজন কর্মকর্তা জানান, সরকারি স্কুলে শূন্যপদের বিপরীতে শিক্ষকতা চালিয়ে নিতে গঠিত পুলের প্রার্থী এবং রেজিস্টার্ড বেসরকারি স্কুলে নিয়োগে গঠিত প্যানেল প্রার্থীরা নিয়োগ নিষ্পত্তির লক্ষ্যে মামলা দায়ের করেছিল। ওইসব মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে দেয়া বিজ্ঞপ্তির আলোকে শিক্ষক নিয়োগ স্থগিত রাখতে উচ্চ আদালতের নির্দেশনা ছিল। ইতিমধ্যে পুল ও প্যানেলভুক্তদের বিষয়টি নিষ্পত্তি হয়ে গেছে। এ কারণে এখন প্রাক-প্রাথমিক স্তরের শিক্ষকদের নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরুর চিন্তাভাবনা করছে ডিপিই।

সকল  চাকরির পরীক্ষার সময়সূচী ও ফলাফল মোবাইলে Notification পেতে  Android apps মোবাইলে রাখেন: Jobs EXam Alert 

Like Our Education page