ক্রিকেট কমিটির প্রস্তাবে ঝগড়া-বিবাদ-অসদাচরণের জন্য খেলোয়াড়দের মাঠ থেকে বের করে দেয়ার ক্ষমতা পাচ্ছে অনফিল্ড আম্পায়াররা। সকল সদস্য এটি বাস্তবায়নের জন্য সম্মতি জ্ঞাপন করেছে। এছাড়া অন্যান্য অপরাধও আইসিসি কোড অব কন্ডাক্টের মাধ্যমে মোকাবেলা করা হবে। তাই আগামী ১ অক্টোবর থেকে এটি কার্যকর করতে যাচ্ছে আইসিসি।
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) সিদ্ধান্ত নিয়েছে, ‘আম্পায়ারস কল’-এ কোনো দল রিভিউ হারাবে না। এটি ক্রিকেট কমিটি কর্তৃক প্রস্তাবিত পরিবর্তিত পরিবর্তনগুলোর একটি অংশ।
লল্ডনে চলতি সপ্তাহে আইসিসি’র

প্রধান নির্বাহী কমিটির বার্ষিক সম্মেলনে অনিল কুম্বলের নেতৃতে গঠিত প্যানেল সুপারিশগুলোর অনুমোদন করেছে। সকল টুয়েন্টি টুয়েন্টি ক্রিকেটের ডিআরএস থাকবে এটিও সিদ্ধান্তগুলোর মধ্যে অন্তর্ভুক্ত ছিলো। এছাড়া টেস্টে ৮০ ওভারের পর নতুন করে ডিআরএস নিয়ম অপরাসিত করা হয়েছে।
ডিআরএস ব্যবহারের ক্ষেত্রে নূন্যতম মান অনুমোদিত বল ট্র্যাকিং এবং প্রান্ত সনাক্তকরণ প্রযুক্তি ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।
এছাড়া ব্যাটের উপর কিছুটা নিয়ম অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, ব্যাটের প্রস্থ ও গভীরতার উপর কিছু নিয়ম করে দেয়া হয়েছে এবং নতুন নিয়মানুযায়ী ব্যাটসম্যান ডাইভিং দিয়ে যদি ব্যাট ক্রিজে প্রবেশ করিয়ে রান সম্পূর্ণ করে কিন্তু তার ব্যাট মাটি থেকে উপরে থাকে, তখন স্টাম্পে বল লাগালেও সে আউট হবে না। বর্তমানে কোনো ব্যাটসম্যান রান সম্পূর্ণ করতে গিয়ে ডাইভ দিয়ে যদি ব্যাট ক্রিজে প্রবেশ করান, কিন্তু তার ব্যাট মাটি থেকে উপরে থাকে ও স্টাম্পে বল লাগানো হয় তবে তাকে আউট ধরা হয়।

Like Our Education page