আবারো অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের বাংলাদেশ সফর নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিলো।  এই একটি মাত্র কারনেই বাংলাদেশ সফর বাতিল করতে পারেন ওয়ার্নার-স্মিথরা।  এটি বাংলাদেশের রাজনৈতিক কিংবা অন্য কোনো সমস্যার কারণে নয়, এবার বেতন ভাতা নিয়ে বোর্ডের সঙ্গে বনিবনা না হলে স্মিথ, ওয়ার্নাররা বাংলাদেশ সফর বয়কট করবেন বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন। 

দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে আগষ্টে বাংলাদেশ সফরে আসার কথা রয়েছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের।  এর আগে তারা নিরাপত্তার অযুহাত দেখিয়ে বাংলাদেশ সফরে

আসেনি।  আর এখন যখন সূচি প্রায় চূড়ান্ত হয়ে গেছে তখন আরো একবার অনিশ্চয়তা দেখা দিল। 

শুক্রবার বিবিসি জানিয়েছে, ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার দেওয়া সংশোধিত বেতন প্রস্তাবও ফিরিয়ে দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট প্লেয়ার্স ইউনিয়ন।  নতুন চুক্তিতে খেলোয়াড়দের বেতন ৩৫ শতাংশ বাড়লেও তা মানতে চাননা তারা।  কারণ খেলোয়াড়রা মনে করেন, বোর্ডের আয়ের চেয়ে তাদের বেতন ভাতা অনেক কম।  এছাড়া রাজস্ব অংশ নিয়েই বেশি আপত্তি খেলোয়াড়দের।  ১৯৯৭ সাল থেকে চলে আসা বর্তমান চুক্তিতে রাজস্বের একটা অংশ পান ক্রিকেটাররা।  বোর্ডের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে শুধু আন্তর্জাতিক ক্রিকেটাররাই বাড়তি রাজস্বের ভাগ পাবেন, ঘরোয়া ক্রিকেটাররা পাবেন একটা নির্দিষ্ট অঙ্ক।  এটা নিয়েও ঘোর আপত্তি রয়েছে খেলোয়াড়দের। 

বোর্ডের সঙ্গে নতুনভাবে চুক্তির সময় ৩০ জুন।  কিন্তু খেলোয়াড়রা চুক্তিতে সই করতে চান না।  বোর্ডের পক্ষ থেকেও জানিয়ে দেওয়া হয়েছে নতুন চুক্তিতে সই না করলে বর্তমান চুক্তি শেষে ক্রিকেটারদের আর বেতন দেবে না বোর্ড। 

Like Our Education page